Google

স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ 70,000/- হাজার টাকা পাবেন কিভাবে দেখুন ? [ Swami Vivekananda Scholarship 2020 Online Application – SVMCM ]

 


নিজস্ব প্রতিবেদন : মেধাবী কিন্তু দুঃস্থ পরিবারের ছাত্র-ছাত্রীদের পশ্চিমবঙ্গ উচ্চ শিক্ষা দফতর প্রতিবছর স্কলারশিপ দিয়ে থাকে। যা ‘স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট কাম মিনস্ স্কলারশিপ’ নামে পরিচিত। যে সমস্ত ছাত্রছাত্রীরা এই বছর মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক অথবা গ্ৰাজুয়েশন পাস করে নতুন কোর্সে ভর্তি হয়েছে তাঁরা এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবে। এছাড়াও যে সমস্ত ছাত্রছাত্রীরা UG, PG ডিপ্লোমা কোর্সে এই বছর ভর্তি হয়েছে তাঁরা স্কলারশিপের জন্য অনলাইনে আবেদন করতে পারবে।


আবেদন করার জন্য যে যে যোগ্যতা লাগবে

১. আবেদনকারীকে পশ্চিমবঙ্গের একজন স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।

২. আবেদনকারীর পারিবারিক আয় ২.৫ লক্ষ টাকার কম হলেই আবেদন করা যাবে।

৩. ২০২০ সালে পরীক্ষায় পাশ করা ছাত্রছাত্রীরাই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবে।

২. দ্বিতীয় ধাপে লিঙ্কে ক্লিক করার পর স্কলারশিপ সংক্রান্ত কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পরের পেজে খুলে যাবে।

তথ্যগুলি পড়ে Tick Box এ টিক দিন procedure for registration বটনে ক্লিক করতে হবে।

৩. তৃতীয় ধাপে রেজিস্ট্রেশন ক্যাটেগরি থেকে কোর্স অনুযায়ী সঠিক Directorate বেছে নিয়ে Apply for Fresh Application অপশনে ক্লিক করতে হবে।

৪) চতুর্থ ধাপে নাম, মোবাইল নং, ইমেল দিয়ে স্কলারশিপের জন্য রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এই সময় আবেদনকারীকে একটা পাসওয়ার্ড তৈরি করতে হবে। যেটি পরবর্তী কালে লগইন করার সময় কাজে লাগবে।

৫) পঞ্চম ধাপে সফলভাবে রেজিস্ট্রেশন করার পর আবেদনকারী একটি Application ID পাবে। যার সাহায্যে সে অনলাইন লগইন করতে পারবে। এই application ID টি লিখে রাখতে হবে।

৬) ষষ্ঠধাপে আবেদনকারীকে application ID এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করতে হবে এবং Dashboard এ Edit profile Application অপশনে ক্লিক করতে হবে আবেদন প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করার জন্য।

৭) সপ্তম ধাপে এবার অনলাইন আবেদন ফর্মটি সঠিকভাবে সমস্ত তথ্য দিয়ে পূরণ করতে হবে এবং আবেদনকারীকে স্ক্যান করা ছবি ও সই ওয়েবসাইটে আপলোড করতে হবে। এরপর save and Next বটনে ক্লিক করে পরবর্তী অংশে যেতে হবে।

৮) অষ্টম ধাপে আবেদনকারীকে বেশকিছু ডকুমেন্ট স্ক্যান করে আপলোড করতে হবে।

গুরুত্বপূর্ণ তারিখ

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট-কাম মিনস্ স্কলারশিপের অনলাইন আবেদনের জন্য বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তারিখ এখানে দেওয়া হলো।

2018 সালের জন্য নতুন ও Renewal আবেদন7th অক্টোবর 2020 থেকে
অনলাইন আবেদনর শেষ তারিখডিসেম্বর 2020
Renewal আবেদনের শেষ তারিখজুলাই 2021

ডকুমেন্টগুলি হল

১. শেষ পরীক্ষার মার্কশিটের উভয় দিক।

২. মাধ্যমিকের অ্যাডমিট কার্ড।

৩. শেষ পরীক্ষার অ্যাডমিট কার্ড।

৪. ইনকাম সার্টিফিকেট।

৫. ইনকাম সার্টিফিকেট এফিডেভিট।

৬. আধার, রেশন, ভোটার কার্ড।

৭. ব্যাঙ্কের পাশবইয়ের প্রথম পাতা।

এরপর সমস্ত ডকুমেন্ট PDF ফরম্যাটে আপলোড করে Submit Application অপশনে ক্লিক করতে হবে।

৮) অষ্টম ধাপে আবেদনকারীকে বেশকিছু ডকুমেন্ট স্ক্যান করে আপলোড করতে হবে।

৯) নবম ধাপে এবার আবেদনকারীর সমস্ত তথ্য অনলাইনে সেভ হয়ে গেছে। এরপর Finalize Application অপশনে ক্লিক করতে হবে। এরপর আবেদনকারী আর ইডিট করতে পারবে না।

১০) দশম ধাপে আবেদন ফাইনালাইজ করার পর আবেদনকারীকে ওয়েবসাইট থেকে Head of the institution verification certificate ডাউনলোড করতে হবে। যেটিতে আবেদনকারীর নিজস্ব Application ID থাকবে। সেটা Head of the institution-কে দিয়ে সই করাতে হবে।

১১) একাদশ ধাপে আবার Application ID ও password দিয়ে login করতে হবে এই সই করা verification certificate টি স্ক্যান করে ওয়েবসাইটে আপলোড করতে হবে। অনলাইন আবেদনের শেষ তারিখ নভেম্বর ২০২০।

বর্তমান কোর্সপ্রয়োজনীয় নাম্বারস্কলারশিপ
উচ্চমাধ্যমিক (XI+XII)মাধ্যমিকে 75% নাম্বারপ্রতি মাসে 1000 টাকা
Undergraduate (Engineering / Medical/ Honours /GNM / Para-medical)উচ্চমাধ্যমিকে 75% নাম্বারপ্রতি মাসে 1000 থেকে 5000 টাকা
ডিপ্লোমা (পলিটেকনিক)মাধ্যমিক অথবা উচ্চমাধ্যমিকে 75% নাম্বারপ্রতি মাসে 1500 টাকা
PostgraduationUG কোর্সে 53% নাম্বারপ্রতি মাসে 2000 থেকে 5000 টাকা

উপরে উল্লেখিত প্রয়োজনীয় যোগ্যতা গুলি পূরণ করলে ছাত্রছাত্রীরা স্বামী বিবেকানন্দ মেরিট-কাম মিনস্ স্কলারশিপের জন্য অনলাইনে আবেদন করতে পারবে।



স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ 70,000/- হাজার টাকা পাবেন কিভাবে দেখুন ? [ Swami Vivekananda Scholarship 2020 Online Application – SVMCM ] স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ 70,000/- হাজার টাকা পাবেন কিভাবে দেখুন ? [ Swami Vivekananda Scholarship 2020 Online Application – SVMCM ] Reviewed by Karmasandhan Recruitment on October 12, 2020 Rating: 5

No comments:

Ad Home

Powered by Blogger.